নিহতের ছেলে মো. আকিব আলী প্রথম আলোকে বলেন, তাঁর বাবার প্রিন্টিং প্রেস ব্যবসায়ের সঙ্গে সংশ্লিষ্টতা ছিল। আজ সকালে রাজধানীর শান্তিনগরের বাসা থেকে ব্যবসায়িক কাজে পুরানা পল্টনে গিয়েছিলেন তিনি।

ঢামেক পুলিশ ক্যাম্পের পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া জানান, আবদুল আলীর মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। নিহতের গ্রামের বাড়ি মানিকগঞ্জ জেলার হরিরামপুর উপজেলার কর্মকারকান্দি এলাকায়।

এদিকে রাজধানীর রামপুরা ও গুলশান এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় আরও দুজনের মৃত্যু হয়েছে। তাঁরা হলেন আদনান সাকিব (২৮) ও আবদুল লতিফ (৪৮)। রামপুরা থানার উপপরিদর্শক (এসআই) সাজ্জাদ হোসেন বলেন, রামপুরা টিভি সেন্টারের পাশে আজ দুপুরে রাস্তা পার হওয়ার সময় কাভার্ড ভ্যানের ধাক্কায় গুরুতর আহত হন আদনান। পরে হাসপাতালে তাঁর মৃত্যু হয়।

গুলশান থানা সূত্রে জানা যায়, ভাটারার নর্দ্দা এলাকায় আবদুল লতিফের একটা সবজির দোকান রয়েছে। গতকাল রোববার রাতে কাঁচামাল কিনতে তিনি বাসা থেকে কারওয়ান বাজারে যান। সেখান থেকে কাভার্ড ভ্যানে করে দোকানের দিকে ফিরছিলেন। গাড়িটি গুলশান-২ এলাকায় এসে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশের আইল্যান্ডের সঙ্গে ধাক্কা দেয়। এতে গাড়ি থেকে ছিটকে পড়ে মাথায় গুরুতর আঘাত পান আবদুল লতিফ। হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকেরা তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন