বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এ ঘটনার খবর পেয়ে অন্য শিক্ষার্থীরা এসে বিহঙ্গ পরিবহনের বাসটি ভাঙচুর করেন এবং সড়ক অবরোধ করে বাস চলাচল বন্ধ করে দেন। এ সময় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় পুলিশ ফাঁড়ির সদস্যরা বিশ্ববিদ্যালয় প্রথম বর্ষের একজন শিক্ষার্থী ও বাসটির একজন স্টাফকে আটক করে কোতোয়ালি থানায় নেন। শিক্ষার্থীরা এ ঘটনার প্রতিবাদে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জকে অপসারণ, শিক্ষার্থীকে ছেড়ে দেওয়া এবং অভিযুক্ত বাস স্টাফের শাস্তির দাবিতে শাঁখারীবাজার মোড়ে আগুন জ্বালিয়ে বিক্ষোভ করতে থাকেন। রাত একটায় এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা সেখানে অবস্থান করছিলেন।

বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের নেতা আশরাফুল ইসলাম বলেন, বাসে হাফ ভাড়া নিয়ে হয়তো ছাত্রীর সঙ্গে স্টাফের ঝামেলা হয়ে থাকতে পারে। বিষয়টি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ও পুলিশ প্রশাসন দেখছে। আটক শিক্ষার্থীকে মুচলেকা নিয়ে পুলিশ ছেড়ে দেওয়ার প্রক্রিয়া চলছে।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর মোস্তফা কামাল। পরে তিনি কোতোয়ালি থানায় যান। প্রক্টরের বক্তব্য জানার জন্য মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন ধরেননি। ঘটনাস্থলে উপস্থিত পুলিশ সদস্যদের কাছ থেকেও কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন