default-image

রাজধানীর মেরাদিয়ায় দুর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাতে আহত মো. আসিফ (২৩) আজ শুক্রবার ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা গেছেন। আসিফ পুলিশের সোর্স ছিলেন।
পুলিশ ও আসিফের পরিবার সূত্র জানায়, আসিফ সপরিবার মেরাদিয়ায় থাকতেন।

গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে কে বা কারা মুঠোফোনে ফোন করে তাঁকে ডেকে নিয়ে যায়। তিনি আর বাসায় ফেরেননি। অনেক খোঁজাখুঁজির একপর্যায়ে মেরাদিয়ার মধ্যপাড়ায় ছুরিকাঘাতে আহত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা যায়। পরে স্বজনেরা তাঁকে উদ্ধার করে রাত সাড়ে ১১টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। আজ বেলা তিনটার দিকে সেখানে তাঁর মৃত্যু হয়। দুই ভাই ও চার বোনের মধ্যে তিনি ছিলেন পঞ্চম। তার বাবার নাম হোসেন মিয়া। গ্রামের বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুর উপজেলার রাধানগর এলাকায়।

বিজ্ঞাপন


হাসপাতালে আসিফের ভাই মো. ফয়সাল বলেন, আসিফ পুলিশের সোর্স হিসেবে কাজ করতেন। গতকাল রাতে এলাকার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ীরা তাঁকে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে হত্যা করেছে।


খিলগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফারুকুল আলম আজ রাতে প্রথম আলোকে বলেন, আজ সন্ধ্যায় আসিফের বড় ভাই ফয়সাল হোসেন বাদী হয়ে দুজনের নাম উল্লেখসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেছেন। এজাহারভুক্ত আইউব, মোবারকসহ আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে। তিনি বলেন, আসিফ তাঁর বড় ভাইয়ের সঙ্গে থাই গ্লাস লাগানোর কাজ করার পাশাপাশি পুলিশের সোর্স হিসেবেও কাজ করতেন।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন