বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

গণপূর্তের উপসহকারী প্রকৌশলী জুলফিকার আরেফিন জানান, পানির স্তর অনেক নিচে নেমে যাওয়ার কারণে হাসপাতালে পানি সরবরাহ বন্ধ রয়েছে। পাশের কিডনি ইনস্টিটিউট থেকে পাইপের মাধ্যমে জাতীয় হৃদ্‌রোগ হাসপাতালে সাময়িকভাবে পানি সরবরাহের মাধ্যমে সংকট সমাধানের চেষ্টা চলছে।

গত বৃহস্পতিবার ভোর থেকে হাসপাতালটিতে পানির সংকট শুরু হয়। পানি না থাকার বিষয়টি রোগীর স্বজনেরা জানান হাসপাতালের ওয়ার্ড মাস্টারদের। তাঁরা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি অবহিত করেন। পরে হাসপাতালের কর্মচারীরা সেখানকার পাম্পে গিয়ে দেখেন, সেখানে পানির বদলে বালু উঠছে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তখন গণপূর্তের প্রকৌশলীদের বিষয়টি জানান। প্রকৌশলীরা সরেজমিন অনুসন্ধান করে জানান, গভীর নলকূপে পানির স্তর নেমে যাওয়ায় পাম্প দিয়ে পানি উঠছে না। এর বদলে বালু উঠছে।

গণপূর্তের উপসহকারী প্রকৌশলী জুলফিকার আরেফিন গতকাল শুক্রবার জানিয়েছিলেন, স্থায়ী সমাধানের জন্য নতুন করে গভীর নলকূপ খনন শুরু হয়েছে। এ কাজ শেষ করতে আরও পাঁচ থেকে সাত দিন সময় লাগবে।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন