গত বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে রাজধানীর ব্যস্ততম সড়ক শাহজাহানপুরের আমতলা মসজিদ এলাকায় জাহিদুল ইসলামকে গুলি করে হত্যা করা হয়। তিনি এ সময় নিজ গাড়িতে খিলগাঁওয়ের বাগিচা এলাকার বাসায় যাচ্ছিলেন। গাড়ি যানজটে পড়ার পর মোটরসাইকেলে আসা হেলমেট পরা এক যুবক জাহিদুলকে লক্ষ্য করে গুলি করেন। এ সময় এলোপাতাড়ি গুলিতে জাহিদুলের গাড়িচালক মনির হোসেন এবং রিকশারোহী কলেজছাত্রী সামিয়া আফরান জামাল গুলিবিদ্ধ হন। পরে হাসপাতালে নেওয়া হলে জাহিদুল ও সামিয়াকে চিকিৎসকেরা মৃত ঘোষণা করেন। চালক মনির হোসেন চিকিৎসা শেষে গতকাল ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ছেড়েছেন। জাহিদুলের গাড়ির পেছনের আসনে থাকা তাঁর দুই বন্ধু মিজানুর রহমান ও আবুল কালাম প্রাণে বেঁচে যান।

তদন্তসংশ্লিষ্ট একটি সূত্র জানায়, ঘটনাস্থলের সিসি ক্যামেরার ফুটেজে দেখা গেছে, গুলিবর্ষণকারী ব্যক্তি একটি মোটরসাইকেলের পেছনে বসে ঘটনাস্থলে আসেন। মোটরসাইকেলচালক ও গুলিবর্ষণকারী ব্যক্তিকে চিহ্নিত করা গেছে।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন