বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

পরিবেশ ও নাগরিক অধিকারবিষয়ক সংগঠনটি বিভিন্ন পর্যায়ের বিশেষজ্ঞদের সমন্বয়ে স্বাধীন তদন্ত কমিটি, স্বতন্ত্র নকশা অনুমোদন কমিটি ও অভ্যন্তরীণ মাস্টারশিপ-ড্রাইভারশিপ পরীক্ষা বোর্ড গঠনের প্রস্তাব করে।

সংগঠনটি ১৫টি সুপারিশ উত্থাপন করে। এ সময় উপস্থিত সংশ্লিষ্ট বিশেষজ্ঞ, নৌযানমালিক ও শ্রমিকনেতাসহ বিশিষ্টজনেরা সুপারিশগুলো বাস্তবসম্মত ও সময়োপযোগী মন্তব্য করে সেগুলো বাস্তবায়নের জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানান। সুপারিশগুলো উত্থাপন করেন সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক আশীষ কুমার দে।

তাঁদের করা সুপারিশগুলোর কয়েকটি হলো: প্রতিটি দুর্ঘটনার তদন্ত প্রতিবেদন, দায়ীদের বিরুদ্ধে কী ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে ও নকশা জালিয়াতি বন্ধে অনুমোদিত নৌযানের তালিকা নৌ মন্ত্রণালয় ও নৌ অধিদপ্তরের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা। নৌ অধিদপ্তরের ‘শিপ সার্ভেয়ার’ সংকট নিরসন ও বার্ষিক সার্ভে প্রক্রিয়ায় স্বচ্ছতা ও জবাবদিহি নিশ্চিতকরণ। সমুদ্রগামী ও অভ্যন্তরীণ নৌযানের শতভাগ শ্রমিকের করোনার টিকা নিশ্চিত করা। নৌ অধিদপ্তরকে শক্তিশালী ও গতিশীল করতে পূর্ণাঙ্গ জনবল নিয়োগ। রাজস্ব আদায় ও নৌপথের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে জাতীয় নৌশুমারির ব্যবস্থা নিয়ে নিবন্ধন ও ফিটনেসবিহীন নৌযানের বিরুদ্ধে বিআইডব্লিউটিএ ও নৌ অধিদপ্তরের ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা।

সুপারিশগুলোর মধ্যে আরও ছিল: নৌ অধিদপ্তরের স্বচ্ছতা ও জবাবদিহি নিশ্চিতকরণে ‘ডুবে থাকা জাহাজের সার্ভে’র ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন এবং দুর্নীতি দমন কমিশনের সিদ্ধান্তে ও নৌ মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে নৌ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক কর্তৃক ২০২০ সালের ৩১ ডিসেম্বর গঠিত তদন্ত কমিটির প্রতিবেদন প্রকাশ এবং নদী খনন ও নৌপথের পলি অপসারণকাজের গতি বৃদ্ধি, স্বচ্ছতা ও জবাবদিহি নিশ্চিত করা।
আলোচনায় অন্যান্যের মধ্যে অংশ নিয়েছেন বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) নৌযান ও নৌযন্ত্র কৌশল বিভাগের অধ্যাপক মীর তারেক আলী, বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌচলাচল (যাত্রী পরিবহন) সংস্থার সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান বদিউজ্জামান বাদল, বাংলাদেশ নৌযান শ্রমিক ও কর্মচারী ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক সবুজ সিকদার প্রমুখ।

সুন্দরবন ও উপকূল সুরক্ষা আন্দোলনের সমন্বয়ক নিখিল ভদ্রর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলনের (বাপা) যুগ্ম সম্পাদক মিহির বিশ্বাস, মিডিয়া ফোরাম ফর হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড এনভায়রনমেন্ট ডেভেলপমেন্টের (মেড) নির্বাহী পরিচালক রফিকুল ইসলাম প্রমুখ।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন