বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

র‍্যাব বলছে, ১০ বছরের শিশুটি রাইদা পরিবহনের একটি চলন্ত বাস থেকে পড়ে যায়। বাসের চালক ও সহযোগীকে আজ শুক্রবার সন্ধ্যার পর আবদুল্লাহপুর থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামিরা ঘটনার সঙ্গে সম্পৃক্ততার অভিযোগ স্বীকার করেছেন।

শনিবার সকালে এ বিষয়ে সংবাদ সম্মেলন করবে র‍্যাব।

গত মঙ্গলবার সকাল সাড়ে সাতটার দিকে রক্তাক্ত শিশুটিকে অচেতন অবস্থায় যমুনা ফিউচার পার্কের উল্টো পাশের ফুটপাতে পড়ে থাকতে দেখা যায়। পরে শিশুটিকে নিয়ে এক নারী ও পুলিশের একজন সদস্য কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ছুটে যান। সেখানকার চিকিৎসকেরা শিশুটিকে মৃত ঘোষণা করেন। পুলিশের করা সুরতহাল প্রতিবেদনে শিশুটির নাক দিয়ে রক্ত পড়া এবং যৌনাঙ্গ ফুলে থাকার কথা বলা হয়।

মৃতদেহ উদ্ধারের পর থেকে থানা, সিআইডি, পিবিআই ও র‍্যাব তদন্ত শুরু করে। ঘটনাস্থলের আশপাশের সিসি ক্যামেরার ফুটেজে শিশুটিকে উড়ালসড়ক পার হয়ে যমুনা ফিউচার পার্কের উল্টো দিকে যেতে দেখা যায়।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন