বিএনপি নেতা শাহজাহান সিরাজ মারা গেছেন

বিজ্ঞাপন
default-image

সাবেক বন ও পরিবেশমন্ত্রী ও বিএনপি নেতা শাহজাহান সিরাজ (৭৮) আর নেই (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। আজ মঙ্গলবার বিকেলে রাজধানীর এভার কেয়ার হাসপাতালে (সাবেক অ্যাপোলো) চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। দীর্ঘদিন ক্যানসারসহ নানা রোগে ভুগে অবশেষে মৃত্যুর কাছে হার মানলেন মুক্তিযুদ্ধসহ ইতিহাসের নানা পর্বের সাক্ষী সাবেক এই জাসদ নেতা।

পারিবারিক সূত্র জানায়, কাল বুধবার বাদ এশা গুলশান সোসাইটি জামে মসজিদে তৃতীয় জানাজার পর বনানী কবরস্থানে শাহজাহান সিরাজের দাফন হবে। এর আগে বেলা ১১টায় টাঙ্গাইলের এলেঙ্গায় প্রথম জানাজা, বাদ জোহর কালীহাতি উপজেলায় দ্বিতীয় জানাজা হবে।

স্বাধীনতার ইশতেহার পাঠকারী শাহজাহান সিরাজ দীর্ঘদিন ডায়াবেটিস, কিডনি জটিলতা, উচ্চ রক্তচাপে ভুগছিলেন। ২০১২ সালে তাঁর ফুসফুসে, এরপর মস্তিষ্কে ক্যানসার ধরা পড়ে। অসুস্থতার কারণে রাজনীতি থেকে নিষ্ক্রিয় হয়ে পড়েন। অনেক দিন ধরে তিনি হাসপাতালে যাওয়া–আসার মধ্যে ছিলেন। গত সোমবার অবস্থার অবনতি হলে তাঁকে এভার কেয়ার হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানেই তাঁর মৃত্যু হয়। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী রাবেয়া সিরাজ, মেয়ে সারওয়াত সিরাজ ও ছেলে রাজীব সিরাজকে রেখে গেছেন। রাজীব সিরাজ দেশের বাইরে আছেন।

শাহজাহান সিরাজ জাসদ থেকে বিএনপির রাজনীতিতে যুক্ত হন। ২০০১ সালে বিএনপির নেতৃত্বাধীন চারদলীয় জোট সরকারের সময় বন ও পরিবেশমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন। তিনি বিএনপির কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান ছিলেন। রাবেয়া সিরাজও বিএনপির রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত।

মৃত্যুর খবর পেয়ে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ কেন্দ্রীয় নেতাদের অনেকে তাঁর গুলশানের বাসায় ছুটে যান। তাঁরা প্রয়াত নেতার বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং শোকাহত পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জানান।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন