বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

গ্রেপ্তার ব্যক্তিরা হলেন মামুন মণ্ডল (৩৩), আলী (৩২), আহম্মেদ (৩০) ও সুমন শেখ ওরফে আলী হোসেন। তাঁদের কাছ থেকে ছিনতাইয়ের কাজে ব্যবহৃত একটি গাড়ি, একটি পিস্তল, একটি গুলি, একটি খেলনা পিস্তল, ডিবি লেখা একটি জ্যাকেট, একটি ওয়াকিটকি, ভুয়া নম্বর প্লেট ও ১৫ হাজার টাকা উদ্ধার করার কথা জানিয়েছে ডিবির মতিঝিল বিভাগ।

ডিবি মতিঝিল বিভাগের উপকমিশনার (ডিসি) রিফাত রহমান বলেন, চক্রটির সদস্যরা কয়েকটি দলে ভাগ হয়ে ছিনতাইয়ের কাজ করতেন। কেউ টার্গেট ব্যক্তিকে অনুসরণ করতে তাঁর সঙ্গে ব্যাংকে যেতেন। টার্গেট গ্রাহক টাকা উত্তোলন করলে ভেতরে থাকা চক্রের সদস্য সঙ্গে সঙ্গে বাইরে থাকা সহযোগীদের মুঠোফোনে জানিয়ে প্রস্তুত হতে বলতেন। গ্রাহক টাকা নিয়ে ব্যাংক থেকে বের হলেই তাঁকে ডিবি পরিচয়ে গাড়িতে তুলে নিতেন চক্রের সদস্যরা। পরে গ্রাহকের কাছে থাকা টাকা ও মুঠোফোন ছিনতাই করে তাঁকে ফাঁকা রাস্তায় ফেলে পালিয়ে যেতেন চক্রের সদস্যরা।

default-image

ডিবি জানায়, গত ২৯ আগস্ট মালিবাগের একটি বেসরকারি ব্যাংক থেকে পাঁচ লাখ টাকা তুলে বাসায় ফিরছিলেন মোশারফ হোসেন নামের এক ব্যক্তি। ডিবি পরিচয়ে তাঁর কাছ থেকে টাকা ছিনিয়ে নেন এই চক্রের সদস্যরা। এই ছিনতাইয়ের ঘটনা তদন্ত করতে গিয়ে চক্রটির সন্ধান পায় ডিবি।

গ্রেপ্তার ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে রাজধানীর মুগদা থানায় মামলা করা হয়েছে বলে জানায় ডিবি।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন