বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

দেশের শিক্ষার্থীরা কয়েক দিন ধরেই ভাড়া কমানো বা ‘হাফ পাস’ নিয়ে আন্দোলন করে আসছেন। এরই পরিপ্রেক্ষিতে এক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। আজ বিকেলে বনানীর বিআরটিএ কার্যালয়ে শিক্ষার্থীদের অর্ধেক ভাড়া দাবির বিষয়ে অনুষ্ঠিত ওই বৈঠক শেষে এ কথা জানান সড়ক পরিবহন মন্ত্রণালয়ের সচিব নজরুল ইসলাম। বৈঠকে শিক্ষা মন্ত্রণালয়, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও পুলিশের প্রতিনিধি ছাড়া বিআরটিসির চেয়ারম্যান এবং বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠক শেষে সচিব নজরুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, শিক্ষার্থীদের দাবির বিষয়টি নিয়ে সরকার আন্তরিক। তবে পরিবহনমালিকেরা কমাতে রাজি নন। সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, সামাজিক দায়বদ্ধতা (সিএসআর) হিসেবে শিক্ষার্থীদের জন্য ভাড়া কমানোর বিষয়টি বিবেচনায় নিতে। আজ পরিবহনমালিকদের অন্য একটি বৈঠক ছিল। এ জন্য তাঁদের সব প্রতিনিধি আসতে পারেননি। তাই যত তাড়াতাড়ি সম্ভব, নিজেদের মধ্যে বসে একটি প্রস্তাব দেওয়ার জন্য পরিবহন মালিক সমিতির প্রতি অনুরোধ জানানো হয়েছে।

সচিব বলেন, ভাড়ার বিষয়টি চাপিয়ে দেওয়া যাবে না। সরকার যদি নির্দিষ্ট একটি হার উল্লেখ করে বলে দেয়, বেসরকারি মালিকদের সেটা মানতে হবে। তাহলে তারা হয়তো বাস চালানো বন্ধ করে দিতে পারেন। তখন আরেক জনভোগান্তি হবে। এ জন্য আলোচনার মাধ্যমে সমস্যার সমাধান করতে চান তাঁরা।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন