হলি ফ্যামিলি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সহকারী অধ্যাপক ও অর্থোপেডিক সার্জন ক্যাপ্টেন (অব.) সাইফুল ইসলামের নেতৃত্বে একদল চিকিৎসক এই কার্যক্রম পরিচালনা করছেন। সাইফুল ইসলাম বলেছেন, যেসব মানুষের হাঁটু বা কোমরের জয়েন্ট নষ্ট হয়ে গেছে ও চলাফেরা করতে পারছেন না, তাঁরা এই চিকিৎসাসেবা পাবেন। অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে তাঁদের হাঁটু বা কোমরের জয়েন্ট কৃত্রিমভাবে প্রতিস্থাপন করা হবে।

সাইফুল ইসলাম আরও বলেন, হাঁটু ও কোমরের রোগে ভোগা দরিদ্র মানুষদের পরিবার, সমাজ এমনকি দেশও বোঝা মনে করে। তিনি বলেন, ‘আমার লক্ষ্য হলো স্থবির এই মানুষদের দুঃসহ অবস্থা থেকে সারিয়ে তোলা।’ সাইফুল ইসলাম বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী পালিত হচ্ছে। আর এ কারণে এটাই সঠিক সময় দুস্থ ও অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর।

বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মেজর জেনারেল (অব.) এ টি এম আবদুল ওয়াহ্হাব এই সেবার প্রধান উদ্যোক্তা। আগে আসলে আগে পাবেন ভিত্তিতে বিনা মূল্যে এই কৃত্রিম হাঁটু ও কোমরের হাড় প্রতিস্থাপন ইতিমধ্যে শুরু হয়েছে।

এই উদ্যোগের সঙ্গে যুক্ত চিকিৎসক সাবরিনা আহমেদ বলেন, স্বাভাবিকভাবে কৃত্রিম হাঁটু বা কোমরের জয়েন্টের প্রতিস্থাপনে সাড়ে তিন লাখ টাকার বেশি খরচ হয়, যার মধ্যে চিকিৎসা সরঞ্জাম ক্রয় ও সার্জনের অস্ত্রোপচারের ভাতা নেওয়া হচ্ছে না। শুধু ওষুধপত্র কেনা ও হাসপাতালের বিছানা ভাড়ার খরচ বাবদ রোগীর স্বজনদের মাত্র ৫০ হাজার টাকা প্রয়োজন হয়।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন