যাত্রাবাড়ী থানার ওসি মাজহারুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, টনি টাওয়ারের সামনের সড়কে যুবলীগের মতবিনিময় সভা চলছিল। এ সময় ছাত্রদলের একটি মিছিল যাচ্ছিল সেখান দিয়ে। মিছিলে দেড় থেকে দু শ’ লোক ছিলেন। ওই মিছিল থেকে যুবলীগের সভায় হামলা চালানো হয়। তাঁরা দুটি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায়।

এরপর দুই পক্ষের মধ্যে মারামারি শুরু হয়। সভায় যুবলীগের দুইশ থেকে আড়াইশ নেতা–কর্মী ছিলেন। ঘটনাস্থল থেকে ছাত্রদলের তিনজনকে আটক করা হয়েছে।

ওসি মাজহারুল ইসলামের অভিযোগ বিষয়ে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক তানভীর আহমেদ প্রথম আলোকে বলেন, ছাত্রদলের কোনো কর্মসূচি ছিল না। নেতা–কর্মীরাও কোনো ধরনের ঝামেলাও করেননি। এটা একটা বানোয়াট কাহিনী। পুলিশ ভুয়া কাহিনী বানিয়ে বিভিন্ন স্থানে এমন মামলা দিচ্ছে।