ডিএমপি কমিশনার শফিকুল ইসলাম বলেন, তাজিয়া মিছিলের আনুষ্ঠানিকতা মূলত চার দিনব্যাপী। ৭ আগস্ট থেকে শুরু হয়ে চলবে ৯ আগস্ট পর্যন্ত। কিছু জায়গায় আবার ৬ আগস্ট থেকে শুরু হবে আনুষ্ঠানিকতা।

তাজিয়া মিছিলকে কেন্দ্র করে রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে পুলিশ মোতায়েন থাকবে। বিভিন্ন ভবনের ছাদেও পুলিশ থাকবে। যেসব জায়গা থেকে তাজিয়া মিছিল শুরু হবে সেসব জায়গায় আগে থেকে বোমা নিষ্ক্রিয়করণ ইউনিট ও ডগ স্কোয়াডের মাধ্যমে সুইপিং করা থাকবে। এ ছাড়া যেসব রাস্তা দিয়ে তাজিয়া মিছিল অতিক্রম করবে, সেসব রাস্তা সম্পূর্ণ নিরাপত্তা বলয়ে বেষ্টিত থাকবে।

তাজিয়া মিছিলের এক-দুই দিন আগে থেকে সংশ্লিষ্ট এলাকার আশপাশের হোটেলগুলোয় অভিযান পরিচালনা করা হবে বলে জানান শফিকুল ইসলাম। তিনি বলেন, ‘এ ছাড়া সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তাজিয়া মিছিলকে নিয়ে কোনো ধরনের হিংসাত্মক বা অপপ্রচার বক্তব্য প্রচার করা হচ্ছে কি না, সে বিষয়ে আমাদের নজরদারি থাকবে। সে অনুযায়ী ব্যবস্থাও আমরা গ্রহণ করব।’

শফিকুল ইসলাম আরও বলেন, ‘তাজিয়া মিছিলে নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে আমরা গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর সঙ্গে সমন্বয় করে কাজ করছি।’

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন