ছাদের রেলিং ছিল অস্থায়ী। আতাউল ছাদে রাখা ফুলের গাছে পানি দিতে গিয়ে রেলিং ভেঙে পড়ে গুরুতর আহত হন। গুরুতর আহত অবস্থায় আতাউলকে সকাল পৌনে আটটার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে যাওয়ার পর চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া জানান, বিষয়টি সংশ্লিষ্ট থানাকে জানানো হয়েছে। আতাউলের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজের মর্গে রাখা হয়েছে।

পরিবার সূত্রে জানা গেছে, আতাউল সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার হাটবায়রা গ্রামের হাবিবুর রহমানের ছেলে। দক্ষিণগাঁওয়ে পরিবার নিয়ে থাকতেন তিনি।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন