হাজারীবাগ থানার এসআই শেখ সজীব বলেন, তাঁরা শ্যামলের আত্মীয়স্বজন ও প্রতিবেশীদের সঙ্গে কথা বলেছেন। প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছেন, ১৪ অক্টোবর সকাল ৯টার দিকে বউ বাজার এলাকায় নিজের গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন শ্যামল। পরে পরিবারের লোকজন তাঁকে উদ্ধার করে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করান।

আত্মীয়স্বজন ও প্রতিবেশীদের ভাষ্য, শ্যামল পারিবারিক কলহ থেকে হতাশাগ্রস্ত হয়ে নিজের গায়ে আগুন দিয়েছেন।

হাজারীবাগ থানা-পুলিশ জানিয়েছে, শ্যামলের লাশের ময়নাতদন্ত হবে। এ জন্য তাঁর লাশ ঢাকা মেডিকেল কলেজের মর্গে রাখা হয়েছে।
শ্যামলের স্ত্রী ও সন্তান রয়েছে।