নিহত শিশু রাহিদের বাবা আক্তার হোসেন জানান, খিলগাঁওয়ের নন্দীপাড়ার বাসা থেকে ছেলেকে নিয়ে ত্রিমোহনীর খালপাড়ে গিয়েছিলেন তিনি। সেখান থেকে রাস্তার পাশ ধরে হেঁটে আসছিলেন তাঁরা। এ সময় সড়কে দুটি বাস প্রতিযোগিতা করছিল। এর মধ্যে একটি বাস রাহিদকে চাপা দেয়। এতে রাহিদ গুরুতর আহত হয়ে ছটফট করছিল। সেখান থেকে উদ্ধার করে ছেলেকে হাসপাতালে নিয়ে যান তিনি।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল সূত্র জানায়, শিশু রাহিদকে সন্ধ্যা পৌনে সাতটায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আনা হয়। কর্তব্যরত চিকিৎসক পরীক্ষা করে জানান, রাহিদ আর বেঁচে নেই। তার লাশ এখন হাসপাতাল মর্গে রাখা আছে।