পুলিশ কর্মকর্তা জিয়াউর রহমান প্রথম আলোকে বলেন, ট্রেনে কাটা পড়ে গুরুতর আহত হন মোতালেব মিয়া। তাঁকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

মোতালেবের ভাতিজা হৃদয় মিয়া প্রথম আলোকে বলেন, শুক্রবার মোতালেবের মেয়ের বিয়ে হয়। শনিবার বউভাতের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে তিনি ওয়ারীতে আসেন। অনুষ্ঠান শেষে টিকাটুলী–সংলগ্ন রেললাইন পার হওয়ার সময় ট্রেনে কাটা পড়েন মোতালেব।

ঢাকা রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ফেরদৌস আহমেদ বিশ্বাস প্রথম আলোকে বলেন, ট্রেনে কাটা পড়ে নিহত হওয়ার ঘটনাটি তদন্ত করে আদালতকে জানানো হবে।