গতকালও ডেঙ্গুতে তিনজনের মৃত্যুর খবর দিয়েছিল কন্ট্রোল রুম। এ বছর ডেঙ্গুতে মারা যাওয়া ব্যক্তিদের বড় অংশই শিশু।

২০০০ সালে দেশে ডেঙ্গুর প্রকোপ দেখা দিয়েছিল। ওই বছর ডেঙ্গুতে মারা গিয়েছিলেন ৯৩ জন। এরপর ডেঙ্গুর সবচেয়ে বড় প্রকোপ দেখা দেয় ২০১৯ সালে। ওই বছর মারা যান ১৭৯ জন। করোনা মহামারির শুরুর বছর; অর্থাৎ ২০২০ সালে মারা যান ৭ জন। পরের বছর; অর্থাৎ গত বছর মারা যান ১০৫ জন।

চলতি নভেম্বর মাসের ১৪ দিনে ডেঙ্গুতে ৬৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। আর এ সময় আক্রান্ত হয়েছেন ১১ হাজার ২৭৬ জন।

বিভাগভিত্তিক হিসেবে বরাবরের মতো এ বছরও সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে ঢাকা বিভাগে। এ বিভাগে ১২২ জনের মৃত্যুর তথ্য দিয়েছে কন্ট্রোল রুম। এর মধ্যে ১২০ জনের মৃত্যু হয়েছে ঢাকা মহানগরের বিভিন্ন হাসপাতালে।

ঢাকার পর সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে চট্টগ্রাম বিভাগে। এই বিভাগে এ পর্যন্ত ৫২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে শুধু কক্সবাজারেই মারা গেছেন ২৪ জন। এর মধ্যে বড় অংশটি বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গারা।