আরাফাতের মামা রুবেল রহমান প্রথম আলোকে বলেন, বাসার বারান্দায় খেলার ছলে কাপড় শুকানোর রশি পেঁচিয়ে ঝুলতে চেয়েছিল। এ সময় রশির সঙ্গে গলায় ফাঁস লেগে অচেতন হয়ে পড়ে আরাফাত। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ বাচ্চু মিয়া বলেন, চিকিৎসক শিশুটিকে মৃত ঘোষণার পর পরিবারের লোকজন দ্রুত তাকে নিয়ে চলে যান। এ কারণে বিষয়টি সম্পর্কে বিস্তারিত জানা সম্ভব হয়নি।

আরাফাতের মামা বলেন, আরাফাতের বাবার নাম আজিজুল হক। তিনি একজন ব্যবসায়ী। তাদের গ্রামের বাড়ি বগুড়ায়। জুরাইন এলাকার একটি চারতলা বাসার চতুর্থ তলায় স্ত্রী ও দুই সন্তান নিয়ে বসবাস করেন তিনি। দুই সন্তানের মধ্যে আরাফাত বড়।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন