default-image

দেশে করোনাভাইরাস প্রতিরোধী টিকা কার্যক্রম শুরুর ১১তম দিনে টিকা নিয়েছেন আড়াই লাখের বেশি মানুষ। সারা দেশে আজ বৃহস্পতিবার করোনার টিকা নিয়েছেন ২ লাখ ৬১ হাজার ৯৪৫ জন। এঁদের মধ্যে পুরুষ ১ লাখ ৬৪ হাজার ৯৩৬ ও নারী ৯৭ হাজার ৯ জন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের পাঠানো তথ্যে এ পরিসংখ্যান জানা গেছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্যমতে, বৃহস্পতিবার ঢাকার ৪৬টি হাসপাতাল ও করোনা টিকাদানকেন্দ্র থেকে করোনার টিকা নিয়েছেন ৩১ হাজার ৪১২ জন। এঁদের মধ্যে নারী ১১ হাজার ২৮১ জন, পুরুষ ২১ হাজার ১৩১ জন।

দেশে প্রথম করোনা টিকা দেওয়া হয় গত ২৭ জানুয়ারি। এরপর ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে গণটিকা কার্যক্রম শুরু হয়। এ পর্যন্ত সারা দেশে ১৮ লাখ ৪৮ হাজার ৩১৩ জন মানুষ করোনার টিকা নিয়েছেন। এর মধ্যে নারী ৬ লাখ ১৪ হাজার ৬৫৮ জন।
ঢাকা মহানগরের মধ্যে আজ বৃহস্পতিবার সবচেয়ে বেশি টিকা দেওয়া হয়েছে রাজারবাগ কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালে। এখানে টিকা নিয়েছেন ২ হাজার ৮৭০ জন।

বিজ্ঞাপন

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে টিকা নিয়েছেন ২ হাজার ৩৯৩ জন। এ ছাড়া জাতীয় হৃদ্‌রোগ ইনস্টিটিউটে ১ হাজার ৫০০ জন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) ১ হাজার ৪৫২ জন, ঢাকা শিশু হাসপাতালে ১ হাজার ৩৫২ জন এবং মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১ হাজার ১৪৯ জনকে টিকা দেওয়া হয়েছে। ঢাকা মহানগরে আজ সবচেয়ে কম টিকা দেওয়া হয়েছে মিরপুরের লালকুঠি হাসপাতালে। এখানে ৮৭ জনকে করোনার টিকা দেওয়া হয়।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হিসাব অনুযায়ী, টিকা নেওয়ার ক্ষেত্রে নারীর চেয়ে পুরুষের হার দ্বিগুণের বেশি। এ পর্যন্ত সারা দেশে ১২ লাখ ৩৩ হাজার ৬৫৫ জন পুরুষ করোনার টিকা নিয়েছেন। এর বিপরীতে ৬ লাখ ১৪ হাজার ৬৫৮ জন নারী টিকা নিয়েছেন।
এদিকে গণটিকা কার্যক্রমকে আরও সহজ করতে চালু হলো ‘সুরক্ষা’ অ্যাপ। এত দিন টিকা নিতে নিবন্ধন করতে হতো সুরক্ষা ওয়েবসাইটের মাধ্যমে। এখন থেকে মুঠোফোনের এই অ্যাপেই নিবন্ধন করা যাবে।

করোনাভাইরাস থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন