বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মদিন উপলক্ষে কাল বিশেষ ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে তাঁরা ৭৫ লাখ টিকা দেওয়ার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছেন। এর বাইরে নিয়মিত টিকাদান কার্যক্রমের আওতায় কাল আরও পাঁচ লাখ টিকা দেওয়া হবে। বিশেষ ক্যাম্পেইনে শুধু প্রথম ডোজের টিকা দেওয়া হবে। কাল যাঁরা প্রথম ডোজ নেবেন, তাঁদের ২৮ অক্টোবর দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হবে। টিকা নেওয়ার জন্য সবাইকে জাতীয় পরিচয়পত্র ও টিকা কার্ড সঙ্গে নিয়ে যেতে হবে।

স্তন্যদানকারী মা ও অন্তঃসত্ত্বা নারীরা এই টিকার আওতায় আসবেন না।
আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম বলেন, কাল বিশেষ ক্যাম্পেইনে প্রতিটি ইউনিয়ন পরিষদের যেকোনো একটি ওয়ার্ডে একটি কেন্দ্র থাকবে। পৌরসভায় প্রতিটি ওয়ার্ডে একটি করে এবং সিটি করপোরেশনের প্রতিটি ওয়ার্ডে তিনটি করে বুথে টিকা দেওয়া হবে। স্থানীয়ভাবে বুথ কমানো–বাড়ানো যাবে।

সকাল নয়টা থেকে টিকাদান কার্যক্রম শুরু হবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, তাঁদের লক্ষ্য হলো, কাল এক দিনে প্রতিটি ইউনিয়নে দেড় হাজারের বেশি, পৌরসভার প্রতিটি ওয়ার্ডে ৫০০ বা এর বেশি এবং সিটি করপোরেশনের প্রতিটি ওয়ার্ডে ১ হাজার বা এর বেশি টিকা দেওয়া। এ ছাড়া নিয়মিত যেসব কেন্দ্রে টিকা দেওয়া হচ্ছে, সেগুলোর কার্যক্রমও অব্যাহত থাকবে।

করোনাভাইরাস থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন