default-image

চাঁদপুরের ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ২৪ ঘণ্টায় চারজনের মৃত্যু হয়েছে। তাঁদের মধ্যে একজনের করোনা শনাক্ত হয়েছিল। বাকি তিনজন উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন।

জেনারেল হাসপাতালের করোনাবিষয়ক ফোকাল পারসন ও আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) সুজাউদ্দৌলা রুবেল বুধবার দুপুরে প্রথম আলোকে ওই চারজনের মারা যাওয়ার তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, মঙ্গলবার দুপুর থেকে বুধবার সকাল পর্যন্ত এসব মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে এই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৫৬ জন মৃত্যুবরণ করেন।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, ফরিদগঞ্জের মূলপাড়া এলাকার ১২৪ বছর বয়সী আলফাতুন্নেসা নামের এক নারী সোমবার হাসপাতালে ভর্তি হন। এরপর নমুনা পরীক্ষায় তাঁর করোনা পজিটিভ আসে। মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

এ ছাড়া করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া তিনজনের মধ্যে হাজীগঞ্জের মকিমাবাদ এলাকার জেসমিন আক্তার (৫০) মঙ্গলবার দুপুরে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। এর ১৫ মিনিটের মাথায় তিনি মারা যান। মঙ্গলবার রাত ২টায় ফরিদগঞ্জের দিলীপ দাসকে (৫৮) হাসপাতালে ভর্তি করা হলে বুধবার সকাল ৭টায় তিনি মারা যান। ফরিদগঞ্জের হাবিবুর রহমানকে মঙ্গলবার বিকেল ৪টায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। তিনি ওই দিন সন্ধ্যায় মারা যান। তবে উপসর্গে মৃত তিনজনের স্বজনেরা নমুনা দিতে রাজি না হওয়ায় করোনা পরীক্ষার জন্য তাঁদের নমুনা সংগ্রহ করা হয়নি।

চাঁদপুরের সিভিল সার্জন মো. সাখাওয়াত উল্লাহ বলেন, চাঁদপুরে এ পর্যন্ত করোনায় সংক্রমিত মানুষের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২ হাজার ৩৪৪। এর মধ্যে করোনায় সংক্রমিত হয়ে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৭৮।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন