বিজ্ঞাপন

এর আগে বুধবার বিকেলে (৫.৩০ পর্যন্ত হালনাগাদ) স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, দেশে ৯৯ লাখ ৬৮ হাজার ২৫৭ জন টিকার জন্য নিবন্ধন করেছেন। এরপর রাত নাগাদ বাকি নিবন্ধন সম্পন্ন হয়।

করোনাভাইরাসের টিকা নিতে গত ২৬ জানুয়ারি দেশে নিবন্ধন কার্যক্রম শুরু হয়। এরপর ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হয় গণটিকাদান কর্মসূচি।

টিকার মজুত কম আসায় ৮ জুন থেকে টিকার নিবন্ধনপ্রক্রিয়া স্থগিত করা হয়। এরপর জুন মাসের শেষ দিকে আবার শুরু হয় টিকার নিবন্ধন কার্যক্রম।

শুরুতে ৫৮ লাখ ২০ হাজারের বেশি মানুষকে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকার প্রথম ডোজ দেওয়া হয়। দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন ৪২ লাখ ৯৫ হাজার ২১৮ জন।

দ্বিতীয় দফায় নিবন্ধনকারীরা চীনের সিনোফার্মের টিকা এবং যুক্তরাষ্ট্রের মডার্না ও ফাইজার–বায়োএনটেকের করোনার টিকা পাচ্ছেন।

করোনাভাইরাস থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন