গত ২৪ ঘণ্টায় ১০ হাজার ৯৭৪ জনের নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে করোনা শনাক্তের হার ৯ দশমিক ৭৭। আগের দিন শনাক্তের হার ছিল ১১ দশমিক ১২।

এখন পর্যন্ত দেশে মোট করোনা শনাক্ত হয়েছে ১৯ লাখ ৯৭ হাজার ৪১২ জনের। করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ১৯ লাখ ২৬ হাজার ৯৫৭ জন। এখন পর্যন্ত করোনায় মারা গেছেন ২৯ হাজার ২৪১ জন।

সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া সাতজনের মধ্যে দুজন করে ঢাকা, চট্টগ্রাম ও খুলনা বিভাগের বাসিন্দা এবং একজন সিলেট বিভাগের বাসিন্দা।

বাংলাদেশে প্রথম করোনা সংক্রমণ শনাক্ত হয় ২০২০ সালের ৮ মার্চ। এর পর থেকে এখন পর্যন্ত দেশে করোনা সংক্রমণের চিত্রে কয়েক দফা ওঠানামা করতে দেখা গেছে। গত বছরের শেষ দিক থেকে গত ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝি পর্যন্ত করোনার অমিক্রন ধরনের দাপট চলে। এরপর সংক্রমণ কমতে থাকে। গত মাসের মাঝামাঝিতে দেশে আবার করোনার সংক্রমণ বেড়েছে, বেড়েছে মৃত্যুও।

এবার করোনার সংক্রমণ বৃদ্ধির ক্ষেত্রে অমিক্রনের ২টি উপধরন বিএ৪ ও ৫ দায়ী বলে বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি সক্রিয় বিএ৫। এটির প্রভাবে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে করোনা সংক্রমণ বেড়েছে। গত সপ্তাহে বিশ্বে নতুন করে ৫৭ লাখ মানুষের করোনা শনাক্ত হয়েছে, যা আগের সপ্তাহের চেয়ে ৬ শতাংশ বেশি। তবে গত বছরের তুলনায় করোনায় মৃত্যু এখন কম।

করোনাভাইরাস থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন