বিজ্ঞাপন

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন প্রতিবেশী বলেন, জমিসংক্রান্ত বিরোধ বা পূর্বশত্রুতার জেরে হাসান শেখকে কুপিয়ে হত্যা করা হতে পারে। তবে শরীরে ধারালো অস্ত্রের কোপ দেখে মনে হচ্ছে, হাসানের প্রতি দুর্বৃত্তদের ক্ষোভ ছিল। হাসান মাদকাসক্ত ছিলেন।

পিরোজপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ জেড এম মাসুদুজ্জামান বলেন, পূর্বশত্রুতার জের ধরে এই হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয়েছে বলে সন্দেহ করা হচ্ছে। তবে মাদক নিয়ে বিরোধের জেরে কি না, তা–ও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। নিহত হাসান শেখের পিঠ, ঘাড় ও বুকে পাঁচটি ধারালো অস্ত্রের জখম রয়েছে। এ ঘটনায় মামলা হবে।

অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন