ঢাকার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জের জিনজিরা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক নূর হোসেন ও তাঁর বড় ভাই কামাল হোসেনকে চারটি পেট্রলবোমা, পাঁচটি ককটেলসহ আটক করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। গতকাল শনিবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জের কদমতলী চৌরাস্তা থেকে তাঁদের আটক করা হয়।

র‌্যাব-১০-এর অপারেশন কর্মকর্তা সহকারী পুলিশ সুপার খায়রুল আলম বলেন, আজ রোববার তাঁদের দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। তবে তিনি তাঁদের রাজনৈতিক পরিচয় জানেন না বলে জানান।

ঢাকা জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মনির হোসেন প্রথম আলোকে বলেন, নূর হোসেন জিনজিরা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক। কামাল হোসেন নূর হোসেনের বড় ভাই। কামাল হোসেন জিনজিরা এলাকায় অটোরিকশার যন্ত্রাংশের ব্যবসা করেন। মনির হোসেন দাবি করেন, ‘একটি চক্র আমাদের নেতাকে ফাঁসিয়ে দিয়েছে। তিনি এই ঘটনায় জড়িত নন।’
কামাল হোসেনের অটোরিকশার যন্ত্রাংশের দোকানের আশপাশের লোকজন জানান, তিনি জিনজিরা ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের বিএনপির সহসভাপতি। তবে ​এ বিষয়ে নিশ্চিত হওয়ার জন্য বিএনপির কাউকে পাওয়া যায়নি।
দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জামাল উদ্দিন মীর প্রথম আলোকে বলেন, ‘এদের র‌্যাব কী কারণে ধরেছে, সেটা আমি জানি না। তাদের রাজনৈতিক পরিচয় সম্পর্কেও অবগত নই।’

বিজ্ঞাপন
অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন