default-image

রাজধানীর মতিঝিল এলাকায় একটি ব্যাংকের এটিএম বুথ ভাঙচুরের ঘটনায় দায়ের করা মামলায় এক যুবক গ্রেপ্তার হয়েছেন। তাঁর নাম আলিফ সাকিন হাবিব (২০)।

রোববার ওই যুবক ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। পরে তাঁকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

প্রথম আলোকে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মতিঝিল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) শাহ আবদুল আজিজ।

মামলার কাগজপত্রের তথ্য বলছে, শনিবার ভোর সাড়ে পাঁচটার দিকে আসামি হাবিব মাথায় হেলমেট ও মুখে মাস্ক পরে মতিঝিলের ব্র্যাক ব্যাংকের একটি এটিএম বুথে ঢুকে পড়েন। এরপর এটিএম বুথে কর্মরত নিরাপত্তারক্ষী জসীম উদ্দিনের গলায় ছুরি ধরে তাঁর কাছে থাকা মোবাইল ফোন ও এক হাজার টাকা ছিনিয়ে নেন। পরে জসীমকে মারধর করে তাঁকে এটিএম বুথের পেছনের সার্ভার কক্ষে নিয়ে আটকে রাখেন। তাঁর কাছে থাকা চাবি ছিনিয়ে নেন।

বিজ্ঞাপন

পরে তাঁকে সেখানে আটকে রেখে বাইরে থেকে তালা লাগিয়ে দেন। এরপর আসামি স্ক্রু ও শাবল দিয়ে এটিএম মেশিনের সামনের অংশ খুলে ফেলেন। পরে মেশিনের সঙ্গে থাকা সকল তার ছিঁড়ে ফেলেন। সেখানে থাকা ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা (সিসি ক্যামেরা) খুলে নিজের ব্যাগে ভরেন আসামি আলিফ। এ সময় নিরাপত্তারক্ষী চিৎকার দিলে আশপাশের লোকজন এসে আসামি হাবিবকে ধরে ফেলেন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নিরাপত্তারক্ষী জসীমকে উদ্ধার করে ও হাবিবকে আটক করে।

মন্তব্য পড়ুন 0