শিক্ষক নিয়োগের পরীক্ষার এই জালিয়াতির ঘটনা ঘটেছে চট্টগ্রামে। আজ সোমবার দুপুরে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে মৌখিক পরীক্ষা চলাকালে পরীক্ষার্থী মো. মুজিবুর রহমানকে আটক করা হয়। তিনি সাতকানিয়া উপজেলার কেরানিহাটের বাসিন্দা।

চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন সূত্র জানায়, গত ২২ এপ্রিল প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগের লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ পরীক্ষার্থীদের মৌখিক পরীক্ষা গত ১৪ জুন শুরু হয়। আজ ছিল সাতকানিয়া উপজেলার পরীক্ষার্থীদের মৌখিক পরীক্ষা।

জেলা প্রশাসনের বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, মুজিবুর রহমান প্রক্সি পরীক্ষার দেওয়ার জন্য তাঁর মানিক নামের এক বন্ধুর সঙ্গে পাঁচ লাখ টাকায় চুক্তি করেছিলেন।

মৌখিক পরীক্ষার বোর্ডে থাকা অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) আবু রায়হান দোলন প্রথম আলোকে বলেন, মৌখিক পরীক্ষায় পরীক্ষার্থীদের হাতের লেখা মিলিয়ে দেখা হচ্ছিল। কিন্তু লিখিত উত্তরপত্রের সঙ্গে মুজিবুর রহমানের হাতের লেখা মিলছিল না। এরপর তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে তিনি লিখিত পরীক্ষায় অংশ না নেওয়ার বিষয়টি স্বীকার করেন। এখন তাঁকে পুলিশের কাছে তুলে দেওয়া হয়েছে। তাঁর বিরুদ্ধে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস মামলা করবে।

অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন