১০ বছর করে কারাদণ্ড পেয়েছেন কোম্পানিটির পরিচালক মনসুরুল হক ও গোলাম মোস্তফা।

এ ছাড়া ন্যাশনাল ব্যাংকের সাবেক সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট আবদুল ওয়াদুদ খান ও ভাইস প্রেসিডেন্ট শাহাবুদ্দিন চৌধুরীর ছয় বছর করে কারাদণ্ড হয়েছে।

কারাদণ্ড পাওয়া আসামিদের মধ্যে ওয়াদুদ ও শাহাবুদ্দিনকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। বাকি চারজন পলাতক। তাঁদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছেন আদালত।

মামলার কাগজপত্রের তথ্য বলছে, জালিয়াতির মাধ্যমে ন্যাশনাল ব্যাংকের ২ কোটি ৫৯ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে ২০১৭ সালে ১৭ জানুয়ারি রাজধানীর মতিঝিল থানায় মামলা করে দুদক।

মামলাটি তদন্ত করে ২০১৮ সালের ২৪ জুন আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেয় দুদক। ২০১৯ সালের ১৮ সেপ্টেম্বর আদালতে আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন।
মামলার শুনানিতে দুদকের পক্ষ থেকে ১৩ জন সাক্ষীর মধ্যে ১১ জনকে আদালতে হাজির করা হয়।