আজ শনিবার ডিএমপির গোয়েন্দা শাখার প্রধান মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ রাজধানীর মিন্টো রোডে ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান।

হারুন অর রশীদ বলেন, গত ২০ সেপ্টেম্বর বগুড়ায় লুৎফুর রহমান (৫৫) নামের এক ব্যক্তির বাড়িতে যান সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্রের সদস্যরা। তাঁরা ক্লিনিক ব্যবসায় এক কোটি টাকা বিনিয়োগের প্রস্তাব দেন তাঁকে। প্রতারক চক্রের সদস্যরা লুৎফুরকে বলেন, তাঁদের বস (প্রধান) একজন শিল্পপতি। ঢাকায় তাঁর নিজস্ব বাড়ি, ক্লিনিকসহ শিল্পকারখানা রয়েছে। তবে তিনি বগুড়ায় ভালো মানের ক্লিনিক নির্মাণ করতে চান।

ডিবিপ্রধান বলেন, ক্লিনিক ব্যবসায় এক কোটি টাকা বিনিয়োগ করার ফাঁদে পড়েন লুৎফুর রহমান। প্রথমে পাঁচ লাখ টাকা প্রতারক চক্রের সদস্যদের হাতে তুলে দেন। পরে আত্মীয়স্বজনের কাছ থেকে ঋণ করে প্রতারকদের হাতে তুলে দেন আরও ৯৫ লাখ টাকা।