বিজ্ঞাপন

এজাহারের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, ভুক্তভোগী কিশোরীর বাড়ি লক্ষ্মীপুর জেলার রায়পুর উপজেলায়। গতকাল সন্ধ্যায় সে বাড়ি থেকে অভিযুক্ত হাসানের অটোরিকশায় তার বোনের বাড়ি হাইমচরের দক্ষিণ পাড়াবগুলা যাচ্ছিল। গন্তব্যের কাছাকাছি স্থানে পৌঁছে সন্ধ্যা সাতটার দিকে ওই কিশোরীকে অটোরিকশা থেকে নামিয়ে নেন চালক হাসান ও তাঁর সহযোগীরা। পরে রাস্তার পাশে একটি সুপারিবাগানে নিয়ে ওই কিশোরীকে রাতভর পালাক্রমে ধর্ষণ করেন অভিযুক্ত ব্যক্তিরা।

মামলার পরপরই হাইমচর থানা-পুলিশ অভিযান চালিয়ে তিন আসামিকেই গ্রেপ্তার করেছে।

সকালে নিজ বাড়িতে গিয়ে ওই কিশোরী পরিবারকে বিষয়টি জানালে তার মা হাইমচর থানায় গিয়ে ধর্ষণের অভিযোগে তিনজনকে আসামি করে মামলা করেন। দুপুরের মধ্যেই হাইমচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাহবুবুর রহমান মোল্লার নেতৃত্বে পুলিশ অভিযান চালিয়ে আসামিদের আটক করে।

হাইমচর থানার ওসি মো. মাহবুবুর রহমান মোল্লা বিকেল সোয়া চারটার দিকে প্রথম আলোকে বলেন, ওই কিশোরীকে ধর্ষণ অভিযোগে হওয়া মামলার তিন আসামিকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়েছেন তাঁরা। আসামিদের আজ বিকেলে চাঁদপুরের জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি নেওয়ার জন্য হাজির করা হয়। তখনো তাঁরা আদালতে রয়েছেন বলে আদালত পুলিশ নিশ্চিত করেছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন