default-image

চতুর্থ ধাপে আগামী ১৪ ফেরুয়ারি অনুষ্ঠেয় জয়পুরহাট জেলার দুটি পৌরসভায় মেয়র পদে দুজন নতুন মুখ শাসক দল আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন। তাঁরা হলেন আক্কেলপুর পৌরসভায় উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শহীদুল আলম চৌধুরী ও কালাই পৌরসভায় রাবেয়া সুলতানা। এবারই প্রথম তাঁরা দুজন মেয়র পদে নির্বাচনী মাঠে নৌকা প্রতীক নিয়ে লড়াই করবেন।

গতকাল বুধবার রাতে মেয়র পদে দুজনের নাম ঘোষণা হওয়ার পর আক্কেলপুর ও কালাইয়ে আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা আনন্দ মিছিল করেন।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, আক্কেলপুর পৌরসভায় পাঁচজন ও কালাই পৌরসভায় তিনজন মেয়র পদে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন চেয়েছিলেন। গোপন ভোটে তৃণমূলের মতামত যাচাইয়ের পর প্রাপ্ত ভোটের ক্রমিক অনুসারে তাঁদের নাম প্রস্তাব করে কেন্দ্রে পাঠিয়েছিল জেলা আওয়ামী লীগ। আক্কেলপুর পৌরসভায় তৃণমূলের সর্বোচ্চ ভোট পেয়েছিলেন শহীদুল আলম চৌধুরী আর কালাই পৌরসভায় রাবেয়া সুলতানা তৃতীয় হয়েছিলেন। আক্কেলপুর পৌরসভার বর্তমান মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম মাহফুজ চৌধুরী আগেই মেয়র পদে নির্বাচনে আর অংশ নেবেন না বলে প্রকাশ্যে ঘোষণা দিয়ে তিনি মেয়র পদে শহীদুল আলম চৌধুরীকে সর্মথন জানিয়েছিলেন।

বিজ্ঞাপন

কালাই আওয়ামী লীগের দলীয় নেতা-কর্মীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, রাবেয়া সুলতানার স্বামী সাজ্জাদুল রহমান ওরফে কাজল। তিনি কালাই উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সভাপতি ও কালাই পৌরসভার ৯ নম্বর ওর্য়াডের সাবেক কাউন্সিলর ছিলেন। গত পৌরসভা নির্বাচনে তিনি মেয়র পদে দলীয় মনোনয়ন চেয়ে পাননি। দুই মাস আগে তিনি হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। দলীয় নেতা-কর্মী ও স্বজনেরা সাজ্জাদুল রহমানের স্ত্রী রাবেয়া সুলতানাকে মেয়র পদে নির্বাচন করার জন্য অনুরোধ জানান। অবশেষে তিনি মেয়র পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পান।

আক্কেলপুর পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাওয়া শহীদুল আলম চৌধুরী বলেন, ‘আমাকে মেয়র পদে মনোনয়ন দিয়ে তৃণমূলের মতামতকে প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে।’ তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ সবাইকে ধন্যবাদ জানান।

মন্তব্য করুন