বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আজ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় জলসুখা ২ নম্বর সরকারি প্রাথমিক বিদ‍্যালয় ভোটকেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষের পর এই কেন্দ্রের ভোট স্থগিত করা হয়েছে। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শৈলেন চাকমা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, কেন্দ্রে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

ব‍্যালট পেপার আগুনে পুড়ে যাওয়ায় এই কেন্দ্রের ভোট স্থগিত করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, জলসুখা ২ নম্বর সরকারি প্রাথমিক বিদ‍্যালয় কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ শেষে বিকেলে গণনা শুরু হয়। সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী রোখসানা আক্তার এবং বিদ্রোহী প্রার্থী ফয়েজ আহমেদের সমর্থকেরা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। এ সময় ব‍্যালট পেপারে আগুন ধরিয়ে দেন তাঁরা। এ সময় বেশ কিছু বাড়িঘরও ভাঙচুর করা হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ রাবার বুলেট ও টিয়ার শেল নিক্ষেপ করে। সংঘর্ষে আহত ব্যক্তিদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

জলসুখা ২ নম্বর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের প্রিসাইডিং কর্মকর্তা আবদুল জব্বার বলেন, যেহেতু ব‍্যালট পেপার আগুনে পুড়ে গেছে, তাই এই কেন্দ্রের ভোট স্থগিত করা হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন