বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

পুলিশ ও ভুক্তভোগীর স্বজনেরা জানান, সোমবার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে পারিবারিক বিরোধ নিষ্পত্তির তারিখ ছিল। সকালে নোমান ও তাঁর ভাই বেলায়েত হোসেন আদালতে আসেন। বিরোধ নিষ্পত্তির ঘটনায় পূর্বনির্ধারিত আড়াই লাখ টাকা তাঁদের সঙ্গে ছিল। নোমানের কাছে এক লাখ ও বেলায়েতের কাছে দেড় লাখ টাকা ছিল। এর মধ্যে প্রসাব করার জন্য নোমান আদালত ভবনের এক পাশের খোলা জায়গায় যান। এ সময় অজ্ঞাতনামা দুই যুবক তাঁর ওপর হামলা করে পকেটে থাকা টাকা নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন।

এ সময় তিনি চিৎকার দিয়ে তাঁদের বাধা দেন। তখন ছুরিকাঘাত করে হামলাকারীরা নোমানের কাছ থেকে টাকাগুলো নিয়ে পালিয়ে যান। পরে আশপাশের লোকজন এসে তাঁকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। ঘটনার সময় আদালতে উপস্থিত বিচারপ্রার্থীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। ঘটনার পর আদালত এলাকায় নিরাপত্তা জোরদার করা হয়।

নোমান হোসেন বলেন, ‘অচেনা দুই যুবক আমার ওপর হামলা করে পকেটে থাকা এক লাখ টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়। এ সময় তারা আমার হাতে ছুরি দিয়ে আঘাত করে।’
লক্ষ্মীপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জসিম উদ্দিন জানান, টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনায় মামলা করা হয়েছে। ঘটনাটি নিয়ে তদন্ত চলছে। আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা করা হচ্ছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন