default-image

সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলায় কপোতাক্ষ নদসংলগ্ন খালে ইঞ্জিনচালিত ট্রলারডুবির ঘটনায় নিখোঁজ তিনজনের মধ্যে একজনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে ঘটনাস্থল থেকে আধা কিলোমিটার দূরে কপোতাক্ষ নদ থেকে লাশটি উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল।

লাশ উদ্ধার হওয়া ওই ব্যক্তির নাম বাবুর আলী। তিনি আশাশুনি উপজেলার বকচর গ্রামের মুনজিল সরদারের ছেলে। বাবুর আলী মাটিকাটার শ্রমিক ছিলেন। এখনো নিখোঁজ আছেন দুজন। তাঁরা হলেন বকচর গ্রামের শফিকুল ইসলাম (৪০) ও পুঁইজল্লা গ্রামের আবদুল আজিজ (৩৫)।

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে আশাশুনি উপজেলার প্রতাপনগরের কুড়িকাউনিয়ায় ওই খালে ইঞ্জিনচালিত ট্রলারডুবির ঘটনা ঘটে। এতে ট্রলারে থাকা ১২ জনের মধ্যে ৯ জনকে উদ্ধার করা সম্ভব হলেও ৩ জন নিখোঁজ ছিলেন। নিখোঁজ সেই তিনজনের মধ্যে আজ একজনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। বাকি দুজন এখনো নিখোঁজ।

বিজ্ঞাপন

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের সাতক্ষীরার উপসহকারী পরিচালক তারেক হাসান ভূঁইয়া বলেন, মঙ্গলবার ডুবুরি দল অভিযান শুরু করে। নিখোঁজ হওয়ার ৫২ ঘণ্টা পর আজ দুপুরে মাটিকাটাশ্রমিক বাবুর আলীর লাশ কপোতাক্ষ নদ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। নিখোঁজ অপর দুজনের সন্ধানে অভিযান অব্যাহত।

আশাশুনি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মীর আলিফ রেজা বলেন, ট্রলারডুবির ঘটনায় অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. বদিউজ্জামানকে প্রধান করে পাঁচ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। আগামী সাত দিনের মধ্যে কমিটিকে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন