বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শফিকুর রহমান চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন খানের সঞ্চালনায় সভায় জেলার সহসভাপতি আশফাক আহমদ, নিজাম উদ্দিন, অধ্যক্ষ সুজাত আলী রফিক, আহমদ আল কবির, বীর মুক্তিযোদ্ধা সাদ উদ্দিন আহমদ, শাহ মো. মোসাহিদ আলী, নাজনীন হোসেন, সাংসদ হাবিবুর রহমান প্রমুখ বক্তব্য দেন।

সভায় আসন্ন ইউপি নির্বাচনে দলীয় চেয়ারম্যান পদপ্রার্থীদের জয়ী করতে সংগঠনের সব স্তরের নেতা–কর্মীদের ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার বিষয়টি জেলার মাধ্যমে পর্যবেক্ষণ করার সিদ্ধান্ত হয়। এ ছাড়া ইউপি নির্বাচনে যাঁরা দলীয় প্রার্থী বা নৌকা প্রতীকের বিপক্ষে বিদ্রোহী প্রার্থী হবেন এবং দলীয় প্রার্থীর বিপক্ষে কাজ করবেন, তাঁদের বিরুদ্ধে তাৎক্ষণিক সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণের সিদ্ধান্ত হয়।

ইউপি নির্বাচন সামনে রেখে সাংগঠনিক তৎপরতা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত হয় সভায়। এ প্রসঙ্গে কার্যকরী সভার পর বিজ্ঞপ্তি দিয়ে বলা হয়, যেসব অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের পূর্ণাঙ্গ জেলা কমিটি বিদ্যমান, সেসব অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের জেলা কমিটির জ্যেষ্ঠ নেতাদের সঙ্গে আলোচনা করে মেয়াদোত্তীর্ণ উপজেলা আওয়ামী লীগ, অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের কমিটি পুনর্গঠন করা এবং যেসব উপজেলায় কমিটি নেই, সেসব উপজেলায় কমিটি গঠনের উদ্যোগ নেওয়ার নির্দেশনা দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়।
ইউপি নির্বাচন সামনে রেখে সংগঠনকে গতিশীল করার লক্ষ্যে সিলেট জেলার ১৩টি উপজেলায় উপজেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা করার সিদ্ধান্ত হয়। এ সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ১৩টি উপজেলার দিনক্ষণ ঘোষণা করা হয়।

চলতি অক্টোবরের ২২ তারিখ সিলেটের গোলাপগঞ্জ উপজেলায় বর্ধিত সভা হবে। এরপর ২৩ অক্টোবর বিয়ানীবাজার, ২৪ অক্টোবর ফেঞ্চুগঞ্জ, ২৫ অক্টোবর ওসমানী নগর, ৩০ অক্টোবর কানাইঘাট, আগামী ৬ নভেম্বর জৈন্তাপুর, ৭ নভেম্বর গোয়াইনঘাট, ১৩ নভেম্বর জকিগঞ্জ, ১৪ নভেম্বর কোম্পানীগঞ্জ, ১৫ নভেম্বর বিশ্বনাথ, ২০ নভেম্বর সুরমা, ২১ নভেম্বর বালাগঞ্জ ও ২৭ নভেম্বর সিলেট সদর উপজেলায় বর্ধিত সভা হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন