বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

শিক্ষার্থী ও পুলিশের সূত্র জানায়, সম্প্রতি কালকিনি উপজেলা শহরে চলাচলরত ব্যাটারিচালিত ইজিবাইকসহ তিন চাকার সব ধরনের যানবাহনে নতুন ভাড়ার তালিকা প্রকাশ করে ইজিবাইক মালিক সমিতি। ভাড়া আগের তুলনায় ৫ থেকে ১০ টাকা হারে বাড়িয়ে দেওয়া হয়। হঠাৎ বাড়তি ভাড়ায় বিপাকে পড়ে স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীসহ সাধারণ মানুষ।

প্রতিবাদে দুপুর ১২টার দিকে কালকিনি সৈয়দ আবুল হোসেন কলেজের শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ মিছিল বের করে। তাঁদের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করে মিছিলে যোগ দেয় অন্যান্য স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরাও। বিক্ষোভ মিছিলটি ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের ভুরঘাটা বাসস্ট্যাডে গিয়ে মহাসড়ক অবরোধ করে। শিক্ষার্থীরা আগের ভাড়া নির্ধারণের দাবি জানায়। ভাড়া কমানোর আশ্বাস পেয়ে শিক্ষার্থীরা অবরোধ তুলে নেয়।

শিক্ষার্থী মাশফিক হাসান বলেন, ‘ভুরঘাটা বাসস্ট্যান্ড থেকে কলেজ পর্যন্ত ইজিবাইকে ভাড়া ছিল ১০ টাকা। সেই ভাড়া এক লাফে ১৫ টাকা করা হয়েছে। জিনিসপত্রের দাম বৃদ্ধি নয়, এখানে সিন্ডিকেট করে অতিরিক্ত ভাড়া বাড়ানো হয়েছে। আমরা ওই কালো সিন্ডিকেট ভাঙতে চাই। আমরা আগের ভাড়া নেওয়ার দাবি জানাই।’ নাজমুল হোসেন নামের আরেক শিক্ষার্থী বলেন, ‘প্রতিদিন স্কুলে যেতে ইজিবাইক বা অটোভ্যানে উঠতে হয়। আমার স্কুলে ৫ টাকার ভাড়া এখন ১০ টাকা। এক লাফে দ্বিগুণ। আমরা অতিরিক্ত ভাড়া বন্ধের দাবি জানাই। ভাড়া না কমানো পর্যন্ত আমাদের এ আন্দোলন অব্যাহত থাকবে।’

এ বিষয় জানতে উপজেলা ইজিবাইক মালিক সমিতির সভাপতি শাহাদাত সরদাব বলেন, নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যসহ সব জিনিসপত্রের দাম বেড়েছে। এ কারণে আগের ভাড়া পরিবর্তন করে নতুন ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে। তিন চাকার যানবাহনে নতুন শুধু তারা নন, দেশের অন্য অন্য স্থানেও বাড়ানো হয়েছে। তবে অতিরিক্ত কোনো ভাড়া নেওয়া হচ্ছে না।

কালকিনি থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. নাসিরউদ্দিন বলেন, শিক্ষার্থীরা ভাড়া কমানোর দাবিতে মহাসড়কে জড়ো হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে তাদের বোঝায়। ভাড়া কমানোর বিষয়টি নিয়ে আলোচনার মাধ্যমে সমাধানের আশ্বাস দেওয়া হয়। পরে শিক্ষার্থীরা তাদের অবরোধ তুলে নেয়। বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন