বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, গত বছরের ২ নভেম্বর আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে শহীদুল্লাহ ফকিরের বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হয়েছিল। পরে ট্রাইব্যুনালের নির্দেশে একটি তদন্তদল অভিযোগের বিষয়ে তদন্ত শুরু করে। এর মধ্যে গতকাল তাঁকে পুলিশ আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

ওই দিন বিকেলেই তাঁকে ময়মনসিংহ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে পাঠানো হয়। আদালতের একটি সূত্র জানায়, আগামীকাল শনিবার তাঁকে সংশ্লিষ্ট ট্রাইব্যুনালে হস্তান্তর করা হবে।

ঈশ্বরগঞ্জ পৌরসভার মেয়র ও বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুস ছাত্তার জানান, মুক্তিযুদ্ধের সময় শহীদুল্লাহ ফকির আলবদর বাহিনীর কমান্ডার ছিলেন। তিনি চরম নিষ্ঠুরতা প্রদর্শন করছেন। তাঁর বিরুদ্ধে হত্যাকাণ্ড, অগ্নিসংযোগ, লুটপাটসহ মানবতাবিরোধী অভিযোগ রয়েছে। শহীদুল্লাহর বিরুদ্ধে ঈশ্বরগঞ্জ চরনিখলা উচ্চবিদ্যালয়ের তৎকালীন প্রধান শিক্ষক হরিদাস ভট্টাচার্য ও তাঁর দুই সন্তানকে হত্যার অভিযোগ রয়েছে। এ ছাড়া ১৬ ডিসেম্বর দেশ স্বাধীন হলেও তিনি কিশোরগঞ্জ মহকুমায় হানাদার বাহিনীর ঘাঁটিতে অবস্থান করে পাকিস্তানের পক্ষে সভা–সমাবেশ করেছিলেন বলে অভিযোগ আছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন