বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সওজের চট্টগ্রাম অঞ্চলের নির্বাহী প্রকৌশলী পিন্টু চাকমা আজ শুক্রবার প্রথম আলোকে বলেন, সল্টগোলা এলাকার উড়ালসড়কের একটি অংশে ফাটল দেখা দিয়েছে। তবে তা মূল অবকাঠামোতে নয়। এই ফাটল সংস্কার করে দেওয়া হবে। এ ছাড়া পুরো উড়ালসড়ক পরীক্ষা–নিরীক্ষা করার জন্য ঢাকা থেকে সওজের একটি বিশেষজ্ঞ দল আসছে। তারা এ বিষয়ে বিস্তারিত প্রকৌশলগত সমীক্ষা প্রতিবেদন দেবে। এর ভিত্তিতে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

২০১২ সালের মার্চে এই উড়ালসড়কের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ১ দশমিক ৪২ কিলোমিটার দীর্ঘ এই উড়ালসড়ক চট্টগ্রাম বন্দরের নিউমুরিং কনটেইনার টার্মিনাল (এনসিটি) এবং চিটাগাং কনটেইনার টার্মিনালের (সিসিটি) সঙ্গে বন্দর টোল রোডের সংযোগ ঘটিয়েছে। এই টোল সড়কটি চট্টগ্রাম বন্দরসংলগ্ন কাস্টমস ব্রিজ থেকে ফৌজদারহাট হয়ে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে গিয়ে মিশেছে।

default-image

গত মাসে চট্টগ্রাম নগরের বহদ্দারহাটে এম এ মান্নান উড়ালসড়কের র‍্যাম্পের একটি পিলারে ফাটল দেখা দেয়।
এর আগে গত ২৫ অক্টোবর রাতে চট্টগ্রাম নগরের বহদ্দারহাটে এম এ মান্নান উড়ালসড়কের কালুরঘাটমুখী র‍্যাম্পের পিলারে ফাটলের খবর ছড়িয়ে পড়ে। ওই দিন রাতেই র‍্যাম্পের ওপর দিয়ে যান চলাচল বন্ধ করে দেয় নগরের চান্দগাঁও থানার পুলিশ। ২৭ অক্টোবর নকশা প্রণয়নকারী প্রতিষ্ঠানের বিশেষজ্ঞ দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে মতামত দেয়, পিলারে কোনো ফাটল নেই। চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের নিরপেক্ষ তদন্ত কমিটিও একই মত দেয়। এরপর ১৩ দিন বন্ধ থাকার পর গত রোববার সন্ধ্যায় যান চলাচলের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন