default-image

ব্রাহ্মণবাড়িয়া কসবায় অবৈধভাবে পাহাড় কাটার দায়ে এক ব্যক্তিকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার গোপীনাথপুর ইউনিয়নের মধুপুর এলাকায় এই ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হাছিবা খান।

উপজেলা প্রশাসন, ভ্রাম্যমাণ আদালত ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গোপীনাথপুর ইউনিয়নে অবাধে পাহাড় কাটা হচ্ছে। তবে রাতের আঁধারে এসব পাহাড় কাটা হয়। এতে পরিবেশের ব্যাপক ক্ষতি হচ্ছে। ইউনিয়নের মধুপুর এলাকায় পাহাড় কাটার খবর পেয়ে মঙ্গলবার দুপুরে অভিযান চালায় উপজেলা প্রশাসন। এ সময় পাহাড় কাটা মাটি বহনকারী একটি ট্রাক্টর জব্দ করা হয়। পরে ট্রাক্টরমালিক কাউছার মিয়াকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এর আগে গত ২০ অক্টোবর গোপীনাথপুর ইউনিয়নের পাথারিয়াদ্বার গ্রামে কামাল খন্দকারকে পাহাড় কাটার দায়ে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেছিলেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হাছিবা খান বলেন, রাতের আঁধারে বায়েক এলাকায় পাহাড় কাটা হয়। মধুপুর এলাকায় পাহাড় কাটার মাটি বহনকারী একটি ট্রাক্টর আটক করা হয়। এ সময় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে ট্রাক্টরমালিককে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

কসবা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাসুদ উল আলম প্রথম আলোকে বলেন, সরকারি কিংবা ব্যক্তিমালিকানাধীন পাহাড় কাটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ। এ এলাকার সাংসদ আইনমন্ত্রী আনিসুল হকের নির্দেশনা রয়েছে পাহাড় কাটা শূন্যের কোটায় আনতে হবে। যে ব্যক্তিই পাহাড় কাটুক, তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0