বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, গত ২১ ফেব্রুয়ারি কালীগঞ্জ উপজেলার একটি গ্রামে এক প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ ওঠে। এরপর ২৮ ফেব্রুয়ারি ওই কিশোরীর বাবা কালীগঞ্জ থানায় রহিম বাদশাকে একমাত্র আসামি করে মামলা করেন। পরে র‍্যাব-১৩–এ মামলায় ছায়া তদন্ত শুরু করে। এর ধারাবাহিকতায় গতকাল র‍্যাবের একটি বিশেষ দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রহিম বাদশাকে গ্রেপ্তার করে।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে রহিম বাদশা ধর্ষণে জড়িত থাকার অভিযোগটি স্বীকার করেছেন বলে জানিয়েছে র‍্যাব। গ্রেপ্তার আসামিকে কালীগঞ্জ থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, রহিম বাদশা ওই কিশোরীকে বিভিন্নভাবে উত্ত্যক্ত করে আসছিলেন। ২১ ফেব্রুয়ারি ওই কিশোরীর মা-বাবা ফসলের খেতে কাজ করছিলেন। এ সময় কিশোরীকে বাড়িতে একা পেয়ে রহিম তাকে ধর্ষণ করেন। এ সময় কিশোরীর চিৎকার শুনে তার মা–বাবা দৌড়ে বাড়িতে এলে রহিম পালিয়ে যান।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন