বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

মাসুম তাঁর হাতে থাকা অস্ত্র দিয়ে কাউন্সিলরের সহযোগী ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সদস্য হরিপদ সাহার পেটে গুলি করেন বলে মামলার এজাহারে উল্লেখ আছে।

কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি আনোয়ারুল আজিম প্রথম আলোকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এ নিয়ে এই হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত দুই আসামিকে গ্রেপ্তার করা হলো।

২২ নভেম্বর বিকেল সাড়ে চারটায় কুমিল্লা নগরের পাথুরিয়াপাড়া থ্রিস্টার এন্টারপ্রাইজ নামের ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে ১৭ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো. সোহেল ও তাঁর সহযোগী হরিপদ সাহাকে গুলি করে হত্যা করা হয়। এ সময় আরও কয়েকজন গুলিবিদ্ধ হন। এ ঘটনায় নিহত কাউন্সিলরের ছোট ভাই সৈয়দ মো. রুমন বাদী হয়ে ১১ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাতনামা আরও ৮ থেকে ১০ জনকে আসামি করে হত্যা মামলা করেন। র‍্যাব গতকাল বুধবার এই মামলার ৪ নম্বর আসামি সুজানগর বউবাজার এলাকার বাসিন্দা মো. সুমনকে (৩২) কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে গ্রেপ্তার করে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন