default-image

কুমিল্লা আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে আজ সোমবার ই-পাসপোর্ট কার্যক্রম শুরু হয়েছে। প্রথম দিন ২০টি আবেদন জমা পড়েছে। এতে সেবাগ্রহীতারা ইমিগ্রেশন হয়রানি থেকে রক্ষা পাবেন। সহজে ইন্টারনেটের মাধ্যমে বিদেশগামী যাত্রীদের তথ্য জানা যাবে।

কুমিল্লা আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের সহকারী পরিচালক শামীম আহমেদ বলেন, প্রবাসী অধ্যুষিত কুমিল্লা জেলায় সোমবার ই-পাসপোর্ট কার্যক্রম চালু হয়েছে। অনলাইনে আবেদন করে নির্ধারিত ফি জমা দিলেই হবে।

বিজ্ঞাপন

সহকারী পরিচালক শামীম আরও জানান, গত ২৯ জুন পাসপোর্ট প্রকল্প কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট কর্নেল নুর আলম এর উদ্বোধন করেন। এরপর করোনার প্রকোপ বেড়ে যাওয়ায় এত দিন চালু করা যায়নি। আজ সোমবার তা চালু হলো। পাসপোর্ট অফিসের ওয়েবসাইটে গিয়ে পাসপোর্ট ফরমটি ডাউনলোড করতে হবে। এরপর আবেদনে একটি তারিখ দেওয়া থাকবে। ওই তারিখে পাসপোর্ট অফিসে গিয়ে ১০ আঙুলের ফিঙ্গারপ্রিন্টসহ যাবতীয় কার্যক্রম করতে হবে। সাধারণ ও জরুরি ফি দিয়ে ৪৮ ও ৬৪ পৃষ্ঠার ৫ বা ১০ বছর মেয়াদি ই-পাসপোর্ট গ্রহণ করতে পারবেন আবেদনকারী।

দুপুরে পাসপোর্ট অফিসে কথা হয় ই-পাসপোর্ট করতে আসা কুমিল্লার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সাধারণ) মোহাম্মদ নুরুজ্জামানের সঙ্গে। তিনি বলেন, ‘আমি স্ত্রী ও সন্তান নিয়ে ই-পাসপোর্ট করতে এসেছি। এখন থেকে সহজে মানুষ পাসপোর্ট পাবে। এটাও সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশের অন্যতম সুফল।’

মন্তব্য পড়ুন 0