default-image

কুড়িগ্রামে কলেজশিক্ষকের হাত কেটে নেওয়ার ঘটনায় করা মামলার প্রধান আসামি মো. বাঁধনসহ চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আজ বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে কুড়িগ্রামের পুলিশ সুপার (এসপি) সৈয়দা জান্নাত আরা সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান।

গ্রেপ্তার চারজন হলেন মো. বাঁধন ওরফে হাতকাটা বাঁধন (৩০), মো. রশিদ মিয়া (৩৫), মাজহারুল ইসলাম মনোয়ার (৩০) ও আল আমিন আহাম্মেদ (২৬)। বাঁধন ও রশিদকে ঢাকা থেকে এবং বাকিদের কুড়িগ্রাম থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

পুলিশ জানায়, কুড়িগ্রাম মজিদা আদর্শ ডিগ্রি কলেজের ইতিহাস বিভাগের প্রভাষক ও জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সিনিয়র সহসভাপতি আতাউর রহমান গত ১৬ মার্চ দুপুরে মোটরসাইকেলে করে রাজারহাট উপজেলার পালপাড়া এলাকায় যাচ্ছিলেন। সেখানে ওত পেতে থাকা হাতকাটা বাঁধন বাহিনীর সদস্যরা তাঁর ওপর হামলা চালায়। এতে তাঁর ডান হাতের কবজি শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। এ ছাড়া তাঁর অপর হাত ও দুই পা কুপিয়ে গুরুতর জখম করে দুর্বৃত্তরা। স্থানীয় লোকজন তাঁকে উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। পরে তাঁকে ঢাকার হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

পুলিশ জানায়, গতকাল বুধবার দুপুরে হাতকাটা বাঁধন ও রাশিদকে ঢাকার দক্ষিণখান এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তাঁদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে মনোয়ার ও শুভকে তাঁদের নিজ বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

কুড়িগ্রামের এসপি সৈয়দা জান্নাত আরা বেগম বলেন, গ্রেপ্তার ব্যক্তিরা অনেক তথ্য দিয়েছেন। পুলিশ সেগুলো যাচাই–বাছাই করে বাকি আসামিদের ধরতে চেষ্টা অব্যাহত রেখেছে।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন