আতিক বলেন, সড়কে তিনজনকে কিছু খুঁজতে দেখে তিনি সেখানে যান। সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার লাকমা গ্রামের বাসিন্দা আহমদ আলী (৩৫) টাকা হারিয়ে কান্নাকাটি করছিলেন।

আহমদ আলী কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলেন, জমি বিক্রির দুই লাখ টাকা ও নিকটাত্মীয়দের কাছ থেকে ধার করা আরও দেড় লাখ টাকা নিয়ে তিনি বাড়ি থেকে কোম্পানীগঞ্জে এসেছিলেন ট্রাক্টর কিনতে। কিন্তু কোম্পানীগঞ্জ পৌঁছার পর টাকার ব্যাগটি তিনি আর খুঁজে পাচ্ছিলেন না। আতিক হাসান তখন তাঁকে জানান, তিনি টাকাগুলো পেয়েছেন। টাকাভর্তি ব্যাগ আতিক তাঁর হাতে তুলে দেন। এতগুলো টাকা ফেরত পেয়ে বারবার আহমদ আলী বলছিলেন, ‘এই যুগে এখনো ভালো মানুষ আছে।’

সিলেট আম্বরখানা সিএনজিচালিত অটোরিকশা স্ট্যান্ডের চালক এমদাদ হোসেন বলেন, স্ট্যান্ড থেকে আহমদ আলীকে তিনিই কোম্পানীগঞ্জে নিয়ে গিয়েছিলেন। কোম্পানীগঞ্জ পৌঁছার কিছু সময় আগে আহমদ আলী টাকার ব্যাগ হারিয়ে যাওয়ার বিষয়টি টের পান। তখন তিনি ও তাঁর ভাই পথে ব্যাগটি খুঁজতে থাকেন। পরে ব্যাগটি পাওয়া যায়। তিনি বলেন, যিনি টাকাভর্তি ব্যাগ ফিরিয়ে দিয়েছেন, তিনি খুব ভালো মানুষ। কোনো কিছুর বিনিময় ছাড়াই টাকাগুলো তিনি প্রকৃত মালিকের কাছে ফিরিয়ে দিয়েছেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন