বিএনপি নেতারা জানান, গ্যাসসহ নিত্যপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে এ বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করেছিল খুলনা মহানগর বিএনপি। কর্মসূচি পালনের জন্য মঞ্চ নির্মাণ, ব্যানার টাঙানো, মাইক স্থাপন, চেয়ার বসানোসহ সব কাজ শেষ করা হয়েছিল। বিভিন্ন থানা ও ওয়ার্ড থেকে মিছিল আসার আগেই সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার (ওসি) নেতৃত্বে পুলিশ এসে অনুষ্ঠানের মঞ্চ দখল করে নেয়।

default-image

সমাবেশ করতে না পেরে বিএনপির নেতারা দুপুর পৌনে ১২টার দিকে দলীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন। এ সময় মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক শফিকুল আলম বলেন, কর্মসূচি পালনের জন্য পুলিশের কাছ থেকে লিখিত আবেদনের মাধ্যমে অনুমতি নেওয়া হয়েছিল। সকাল থেকে মঞ্চ নির্মাণের কাজ শুরু হয়। এ সময় পুলিশ-প্রশাসনের কেউ বাধা দেয়নি কিংবা কর্মসূচি পালন করা যাবে না বলেনি। যখন দলীয় নেতা–কর্মীরা আসতে শুরু করেছেন, তখন হঠাৎ পুলিশ এসে ত্রাস সৃষ্টির মাধ্যমে কর্মসূচি পণ্ড করে দিয়েছে।

খুলনা সদর থানার ওসি হাসান আল মামুন প্রথম আলোকে বলেন, মহানগর বিএনপির কেন্দ্র ঘোষিত বিক্ষোভ সমাবেশ ছিল। কার্যালয়ের মধ্যে ওই সমাবেশ করার জন্য অনুমতি দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু দলটি তা না করে সড়ক বন্ধ করে সমাবেশ করতে চেয়েছিল। এ কারণে তাদের ওই সমাবেশ করতে দেওয়া হয়নি।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন