বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

মামুন চৌধুরী প্রথম আলোকে বলেন, গতকাল দুপুরে তিনি বারৈয়ারঢালা বন বিভাগের বিট কার্যালয় এলাকায় একটি বাড়িতে দাওয়াত খেতে গিয়েছিলেন। তিনি ডায়াবেটিসের রোগী। দুপুরে বেশি খেয়ে ফেলায় ভেবেছিলেন হেঁটে ফটিকছড়ি যাবেন। সেখান থেকে বাসে করে বাড়ি ফিরবেন।

দুপুরের পর তিনি হাঁটতে শুরু করেন। কিছু দূর যাওয়ার পর কয়েকজন লোককে ফটিকছড়ি যাওয়ার পথ জিজ্ঞেস করলে তাঁরা ভুল পথ দেখিয়ে দেন। হাঁটতে হাঁটতে সন্ধ্যায় অনেক দূর যাওয়ার পর বুঝতে পারেন, তিনি পথ হারিয়ে ফেলেছেন। ততক্ষণে সন্ধ্যা নেমে গেছে। তখন তিনি ৯৯৯–এ কল দিলে পুলিশ গিয়ে তাঁকে উদ্ধার করে।

সীতাকুণ্ড থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সুমন বণিক প্রথম আলোকে বলেন, ৯৯৯ থেকে ফোন পেয়ে পুলিশের দুটি দল মামুন চৌধুরীকে উদ্ধারে নামে। প্রথম দিকে তিনি নেটওয়ার্কের বাইরে থাকায় উদ্ধারে পুলিশের বেগ পেতে হয়েছে। পরে নেটওয়ার্ক সংযোগ আসার পর স্থানীয় কাঠুরিয়াদের সাহায্য নিয়ে রাত ১০টার দিকে পুলিশের একটি দল ফটিকছড়ি উপজেলার ভুজপুর থানাধীন এলাকায় পাহাড়ের টিলা থেকে তাঁকে উদ্ধার করে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন