বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০১৮ সালের ১২ জুন জিয়াউল তাঁর ছোট ভাই জোবায়ের খন্দকারের কাছে টাকা চান। জোবায়ের টাকা দিতে রাজি না হওয়ায় জিয়াউল তাঁকে ক্রিকেট খেলার ব্যাট দিয়ে মারতে যান। এ সময় তাঁর মা জহুরা বেগম বাধা দিতে এলে তিনি তাঁকে মারধর করেন। এতে তিনি গুরুতর জখম হন। পরে স্থানীয় লোকজন জহুরা বেগমকে গুরুতর আহত অবস্থায় গাইবান্ধা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন।

সেখানে তাঁর অবস্থার অবনতি হলে তাঁকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় জহুরা বেগম মারা যান। এ ঘটনায় নিহত ব্যক্তির স্বামী নুরুল ইসলাম খন্দকার বাদী হয়ে গাইবান্ধা সদর থানায় হত্যা মামলা করেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন