বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

পরিবেশসচিব, স্বাস্থ্যসচিব, পরিবেশ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ও স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালকসহ সাত বিবাদীকে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।
গাজীপুর সিটি করপোরেশনের বাসিন্দা মো. মেহেদী হাসান গত ৭ সেপ্টেম্বর ওই রিট করেন। আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মো. কাওসার হোসাইন। রাষ্ট্রপক্ষে শুনানিতে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল নওরোজ মো. রাসেল চৌধুরী।

পরে আইনজীবী মো. কাওসার হোসাইন প্রথম আলোকে বলেন, পরিবেশগত ছাড়পত্রবিহীন গাজীপুর জেলার ২০৬টি বেসরকারি হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারের বিরুদ্ধে কী ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে, তা জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট। এ বিষয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ও পরিবেশ অধিদপ্তরের মহাপরিচালককে ৬০ দিনের মধ্যে আদালতে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

রিট আবেদনকারীর পক্ষ জানায়, এর আগে গাজীপুরে ছাড়পত্রবিহীন পরিবেশদূষণকারী ক্লিনিক ও ডায়াগানস্টিক সেন্টারগুলোর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিতে অনুরোধ জানিয়ে মেহেদী হাসান ২৩ জুন পরিবেশ, স্বাস্থ্যসচিবসহ সংশ্লিষ্ট সাত কর্তৃপক্ষ বরাবর আবেদন দেন। এ বিষয়ে দৃশ্যমান কোনো পদক্ষেপ না দেখে মেহেদী হাসান ওই রিট করেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন