default-image

জয়পুরহাটের কালাই উপজেলার একটি ফসলি মাঠ থেকে এক কিশোরের (১৫) লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। আজ শুক্রবার দুপুরে মোলামগাড়ী-পাঁচশিরা সড়কের মোস্তসার মোড়ের আলুখেতে লাশটি পাওয়া যায়।

নিহত ওই কিশোরের নাম রিপন মিয়া। সে ক্ষেতলাল উপজেলার মাজিয়াস্থল গ্রামের আনোয়ার হোসেন ওরফে বাবুর ছেলে। রিপন মিয়া ক্ষেতলাল উপজেলার নিশ্চিন্তা বাহিরের আমিরুল ইসলামের ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার (ইজিবাইক) গ্যারেজে কর্মচারী হিসেবে কাজ করত। তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা করছে পুলিশ।

কালাই থানা-পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার রাতে ওই গ্যারেজে একটি ইজিবাইকে চার্জ দিচ্ছিল রিপন। আজ শুক্রবার সকালে মালিক এসে দেখেন গ্যারেজে চার্জে রাখা ইজিবাইক ও কর্মচারী রিপন নেই। এরপর দুপুর ১২টায় কালাই উপজেলার মোস্তসার মোড়ের একটি আলুখেতে রিপন মিয়ার লাশ পড়ে থাকতে দেখেন লোকজন। তাঁরা পুলিশকে খবর দেন। খবর পেয়ে স্বজনেরা ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশটি রিপন মিয়ার বলে শনাক্ত করেন।

কালাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সেলিম মালিক প্রথম আলোকে বলেন, গ্যারেজের কর্মচারী রিপন মিয়াকে শ্বাসরোধ করা হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। গ্যারেজে রাখা ইজিবাইকটিও খুঁজে পাওয়া যায়নি। লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন